খুব দ্রুতই আসছে অবসরের ঘোষণা – বেন স্টোকস

বিশ্বকাপ মিশনে ইংল্যান্ডের শেষ ম্যাচ ছিলো পাকিস্তানের সাথে। যদিও ম্যাচটা ইংল্যান্ড জিতছে। তবে, খুব সম্ভবত বেন স্টোকস ওনার ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপ ম্যাচ খেলে ফেলছে। রিটায়ারমেন্ট ব্রেক করে ওয়ানডে ক্রিকেটে যেহেতু বেন স্টোকস ব্যাক করছেন, হয়তো আরও কিছুদিন খেলবেন। কিন্তু, ২০২৭ বিশ্বকাপ পর্যন্ত না।

২০১১ সালে ওয়ানডেতে অভিষেক হইলেও বেন স্টোকসকে সবাই চিনছে ২০১৬ সালের টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে। ইংল্যান্ড প্রথমে ব্যাটিং করে ১৫৫ রান কালেক্ট করছিলো। ১৫৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের লাস্ট ওভারে দরকার ছিলো ১৯ রান।

Carlos Brathwaite! Carlos Brathwaite! remember the Name, history for the West Indies!

by Ian Bishop

ওয়েস্ট ইন্ডিজের টপ অর্ডার এবং মিডল অর্ডার মিলিয়ে একমাত্র মারলন স্যামুয়েলস ছাড়া বাকি সবাই ফ্লপ। শুধুমাত্র ডুয়াইন ব্রাভো ২৫ রান করছিলো। আর, স্যামুয়েলস শেষ পর্যন্ত ৮৫ রান নট আউট ছিলো। ইয়ন মর্গ্যানের হাতে আর কোনো অপশন না থাকায়, মর্গ্যান ১৯ রান ডিফেন্ড করার জন্য বেন স্টোকসের হাতে বল দেন। স্ট্রাইকে থাকা কার্লোস ব্রাথওয়েট পরবর্তী চারটা বল কি করছে, আপনারা তো দেখলেনই তখন।

বেন স্টোকস এতটাই কষ্ট পাইছিলেন, লজ্জায় মাথা নিচু করে কাদতেছিলেন। সেই ইডেন গার্ডেনে গতকাল ইংল্যান্ডের হয়ে বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচ খেললেন তিনি। ব্যক্তিগত সংগ্রহ ৭৬ বলে ৮৪ রান। এর আগেও স্টোকস ৮৪ রানের আরেকটা ইনিংস খেলছিলেন। বলতে পারবেন কবে?? ২০১৯ বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে। ইংল্যান্ডকে দেয়া নিউজিল্যান্ডের ২৪২ রানের টার্গেট শেষ পর্যন্ত যে ড্র হইলো, ওই ম্যাচেও স্টোকসের ব্যক্তিগত রান ৮৪।

২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপ হারানো বেন স্টোকস ঠিকই ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপ জিতিয়েছেন । ফাইনাল ম্যাচে করেছেন ৫২ রান। পাকিস্তানের বোলিং এটাকের সামনে যেভাবে উইকেট যাচ্ছিলো ইংল্যান্ডের, বেন স্টোকস না থাকলে এই ম্যাচ কোনোভাবেই জেতা হতো না ইংল্যান্ডের।

বেন স্টোকসের কথা বললে, আরেকটি ইনিংস সামনে নিয়ে আসতেই হয়। ২০১৯ এশেজের তৃতীয় টেস্টের ৫ম দিনের কথা। লীডসের হেডেংলি গ্রাউন্ডে বেন স্টোকসের অপরাজিত ১৩৫ রান। প্রথম ইনিংসে ৬৭ রানে ইংল্যান্ডের অলআউট হওয়া, ম্যাচের পার্সপেক্টিভ, সিচুয়েশন, ইনিংসের ব্যপ্তি, সময়কাল, পার্টনারশিপ…সবগুলো কন্সিডার করলে এই অপরাজিত ১৩৫ এশেজের এখন পর্যন্ত সেরা ইনিংসগুলোর একটা। তবে অনেকেই বলে, সবকিছু বাদ!!! বেন স্টোকসের এই অপরাজিত ১৩৫, বেস্ট!

২০১৬ সালে সেই একটা ধাক্কা লাগার পর ২০১৯ বিশ্বকাপ জেতানো, ২০২২ টি-২০ বিশ্বকাপ জেতানো, এশেজ ডিফেন্ড করা, সর্বশেষ ইংল্যান্ড ক্রিকেট টিমের ক্যাপ্টেন হওয়া। ইভেন বিভিন্ন সিরিজে ইংল্যান্ড অনেক গুলো ম্যাচ জিতছে, শুধুমাত্র বেন স্টোকসের ইনিংসের কারণে। শুধুমাত্র এই পারফরম্যান্সের জন্য অবসর ভাঙ্গিয়ে ওনাকে আবার নিয়ে আসা হইছে। ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড অনেক বুঝাইছে, যাদের সাথে উনি অনেক ক্লোজ…তাদেরকে দিয়ে অনুরোধ করানো হইছে। কারণ, বেন স্টোকসের জায়গা কাউকে রিপ্লেস করানো যাচ্ছিলো না।

ওইসব র‍্যাংকিং বাদ দেন, স্টোকস বেস্ট!

by Shakib Al Hasan (Bangladeshi Cricketer)

সাকিব আল হাসানকে একবার জিজ্ঞেস করা হইছিলো, অলরাউন্ডার র‍্যাংকিং-এ আপনি তো নাম্বার ওনার। আপনার কি মনে হয়? বেন স্টোকস সেরা নাকি আপনি? সাকিব আল হাসান এক কথা উত্তর দিছে, “ওইসব র‍্যাংকিং বাদ দেন। স্টোকস বেস্ট।”

অনেক বাংলাদেশী ভাইয়ারা বলেন, বেন স্টোকসের মতো প্লেয়ার আমাদের ক্যানো নাই। এইটার সিম্পল উত্তর হচ্ছে, বেন স্টোকসের ভাগ্য ভালো যে উনি বাংলাদেশর না। ২০১৬ ফাইনালে বেন স্টোকস যা করছে, তা যদি বাংলাদেশের কোনো প্লেয়ার করতো, তার ক্যারিয়ার ওইখানেই শেষ। বাংলাদেশের মিডিয়া-সাংবাদিকদের যে অবস্থা, আর ওনাদের লেখালেখির মাশআল্লাহ যে প্যাটার্ন, অন্তত ক্রিকেট আর কন্টিনিউ করতে পারতো না।

বিস্তারিত ভিডিওতে…

You Might Also Like

Leave a Reply